সকালের নাস্তা বাদ দেবার কথা ভাবছেন? আরেকবার ভাবুন!!

সকালের নাস্তা কেন গুরুত্বপূর্ণ

সেই কিন্ডাগার্টেন থেকে আমরা সবাই জানি, সকালের নাস্তা বা ব্রেকফাস্ট হলো দিনের সবচে’ গুরুত্বপূর্ণ খাবার। তারপরও, অনেকেরই ভালোমতো নাস্তা করতে আলসেমির শেষ নেই। একেবারেই নাস্তা না করে সকালটা কাটিয়ে দেন এমনও মানুষের সংখ্যাও কম নয়। কিন্তু, যারা এই কাজটি করে থাকেন তারা এখনই সতর্ক হয়ে যান। সম্প্রতি বিভিন্ন গবেষনায় দেখা গেছে ‘ব্রেকফাস্ট স্কিপিং’ বা সকালের নাস্তা না করার অভ্যাস, মানবদেহকে ঠেলে দিতে পারে ভয়াবহ কিছু শারীরিক সমস্যার দিকে। কি সেগুলো, সেটাই জেনে নিন এবারে।

সকালের নাস্তা, কেন এত গুরুত্বপূর্ণ?

# নাস্তা না করে বের হয়েছেন। পেটে দানা-পানি পড়েনি বহুক্ষন। ফলাফল, চিরতরে গ্যাস্ট্রাইটিস বা এসিডিটির রোগীতে পরিণত হওয়া।

# অ্যামেরিকান হার্ট এসোসিয়েশনের সম্প্রতি প্রকাশিত গবেষণা রির্পোট বলছে, যে সব পুরুষ সকালের নাস্তা বাদ দেন, তাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অন্যদের চাইতে দ্বিগুন।

# সকালের নাস্তা বাদ দিয়েছেন তো বাড়াচ্ছেন মোটা হওয়ার ঝুঁকি। সকালের ভারী খাবার দিনের বাকি সময়ে অহেতুক খিদে লাগার সম্ভাবনা কমায়। কথার কথা নয়, জার্নাল অফ এপিডেমিলোজির গবেষনালব্ধ ফলাফল তাই বলছে।

# এই বিষয়ে আরো একটি গবেষনার ফল ছাপা হয়, জার্নাল সাইকলজি এন্ড বিহেভিয়ারে। তা হলো, নাস্তা করতে ভুলে গেলে, হয়ে যেতে পারেন ভুলোমনাও!

# সবচে’ ভয়াবহ তথ্য হিসেবে এটিকেই ধরা যেতে পারে। নারীদের মধ্যে নাস্তা বাদ দেয়ার নিয়মিত অভ্যাস যাদের, টাইপ টু ডায়বেটিস হওয়ার সম্ভাবনার ক্ষেত্রে তারা এগিয়ে আছেন অনেকটাই। এটিও কথার কথা নয়, ছয় বছর গবেষণার পর, অ্যামেরিকান জার্নাল অফ ক্লিনিকাল নিউট্রিশান এটি প্রমান করেছে।

# এ বিষয়ে, জার্নাল সাইকলজি এন্ড বিহেভিয়ারের আরো একটি গবেষণার ফলাফল বলছে, খিঁটখিঁটে মেজাজে পরিণত হয় সেই মানুষ যে খালি পেটে দিন শুরু করেছে। সঠিক নাস্তা, ইতিবাচক মনোভাব দিয়ে দিন শুরু করতে সাহায্য করে।

তবে, সকালের নাস্তা হতে হবে আদর্শ। এতে থাকবে, ভিটামিন, মিনারেল, ক্যালসিয়াম সঠিক পরিমানে। বাদ যাবে চিনি, সয়াবিন তেল, চর্বি জাতীয় খাবার ও চিনিযুক্ত পানীয়। কারণ, মস্তিষ্ক ও স্নায়ুতন্ত্র সারাদিন সঠিকভাবে কাজ করার জন্য দিনের শুরুতেই সঠিক খাবারের বিকল্প নেই।

 

 

ইশরাত জাহান স্টেলা

ই-মেইল: contact@atpoure.com

Leave a Reply