গেরস্থালীর ২৫ টিপস! জীবনকে করুন আরো সহজ

গেরস্থালীর ২৫ টিপস!

প্রতিদিন নানা কাজের চাপে অনেক কিছুই হয়তো ঠিকঠাক মতো হয় না। একটু এদিক সেদিক হয়েই যায়। কিন্তু ম্যাজিকটা ঘটে তখনই, যখন খুব সহজ একটা ট্রিকস বাঁচিয়ে দেয় আপনার শ্রম আর সময়। এই ব্যস্ত জীবনকে আরো সহজ করতে জেনে নিন-

গেরস্থালীর ২৫ টিপস! 

১. দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহারে বা খালি রাখলে ফ্রিজে দুর্গন্ধ হতে পারে। এই দুর্গন্ধ দূর করতে ফ্রিজে পাতি লেবু রেখে দিন।

২. দেয়ালে পেরেক গাঁথার আগে পেরেকগুলো ফুটন্ত গরম পানিতে ডুবিয়ে রাখুন। এতে হাতুড়ি মারার সময় দেয়ালের প্লাস্টার খসে আসবে না।

৩. কয়েক ফোঁটা পারফিউম মেশানো পানি দিয়ে কাপড় ইস্ত্রি করুন। এতে ইস্ত্রি হওয়া কাপড়ে সুগন্ধ থাকবে।

৪. সুগন্ধীর সবসময় তুলো বা ভারী কাপড়ে জড়িয়ে রাখুন। এতে সুগন্ধী বেশি দিন ভালো থাকবে।

৫. নখের কোন ভেঙ্গে গেছে? হাতের কাছে কিছু নেই? নখের ভেঙ্গে যাওয়া অংশে ম্যাচের কাঠির বারুদের দিকটা ঘষুন। মুহুর্তেই নখ সমান হয়ে যাবে।

৬. নেইলপলিশ শুকিয়ে জমে গেলে শিশির ভেতর ইউক্যালিপটাস তেল দিন, নরম হয়ে যাবে।

৭. এক লিটার পানির সাথে দুই থকে চার চামচ ডিটারজেন্ট পাউডার গুলে ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রনটা ঘরের আনাচে কানাচে, বিশেষ করে যেখান আরশোলার উপদ্রব বেশি সেসব জায়গায় স্প্রে করে দিন। আরশোলা মরবে, উপদ্রবও কমবে।

৮. যদি বোতলের ছিপি খুব শক্ত হয়ে আটকে যায়, তবে একটি রুমাল গরম পানিতে ভিজিয়ে নিংড়ে নিয়ে বোতলের ছিপির নিচে জড়িয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ পরেই ছিপিটি আলগা হয়ে আসবে।

৯. রান্নার সময় গ্যাসের চুলার ওপর কিছু উপচে পড়ে গেলে লবন ছিটিয়ে দিন। চুলা ঠাণ্ডা হয়ে গেলে ভিজে স্পঞ্জ দিয়ে খুব সহজেই মুছে ফেলতে পারবেন।

১০. রাতে মাঝে মাঝে বেসিনের পাইপের মুখে আধ কাপ মত ভিনেগার ঢেলে দিন। সকালে পানি ঢেলে দিলেই বেসিনের পাইপ পরিষ্কার থাকবে।

১১. নিমপাতা ভেজানো বা সেদ্ধ করা পানি দিয়ে ঘর মুছুন। পোকা-মাকড়ের উপদ্রব কমবে।

১২. তোশক বা গদির তলায় নিমপাতা রেখে দিন। ঘরে পোকামাকড়ের উপদ্রব কমে যাবে।

১৩. আটা, ময়দা, ডাল পোকার হাত থেকে বাঁচাতে চাইলে একমুঠো নিমপাতা শুকিয়ে নিয়ে উপরে ছড়িয়ে দিন, পোকা হবে না।

১৪. দীর্ঘদিন ব্যবহারে সোনার গয়না উজ্জ্বলতা হারায়। ব্যবহারের পর গয়নায় সিঁদুর মাখিয়ে রাখলে গয়না চকচক করবে।

১৫. রান্না পুড়ে পাত্রের তলায় এঁটে গেছে? পাত্রটিকে লবন পানিতে ভর্তি করে চুলায় আঁচে বসান। পানি ফুটতে শুরু করলেই পোড়া অংশ আলগা হয়ে উঠে যাবে।

১৬. রান্নার সময় হাতে হলুদের দাগ ধরে গেছে? আলুর খোসা ছাড়িয়ে হাতে ঘষে নিন। তারপর হাত ধুয়ে নিলে আর হলুদের দাগ থাকবে না।

১৭. কফির স্বাদ বাড়াতে কফিতে সামান্য টেবিল-সল্ট মিশিয়ে নিন।

১৮. ঘি রাখার বয়ামে এক টুকরো আখের গুড় রেখে দিন। এতে ঘিয়ের সুগন্ধ দীর্ঘদনি বজায় থাকবে।

১৯. সয়াবিন বা অন্য ভোজ্য তেলে ৮/১০ টা আস্ত গোলমরিচ ফেলে দিন। তেল দীর্ঘদিন অব্যবহৃত থাকলেও ঠিক থাকবে।

২০. দুধ পুড়ে গেলে বা দুধ থেকে পোড়া গন্ধ আসলে তাতে এক টুকরো পান পাতা দিয়ে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিন। পোড়া গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

২১. পিঠে, পাটিসাপ্টা, মালপোয়া তৈরি করার সময় গোলায় একটু আটা মিশিয়ে দিন। পিঠে ঠিকভাবে তৈরি হবে।

২২. বিস্কুটের টিনে এক টুকরো ব্লটিং পেপার রেখে দিন। বিস্কুট মিইয়ে বা নরম হয়ে যাবে না।

২৩. চিনির পাত্রের দু-চারটি লবঙ্গ দিয়ে রাখলে পিঁপড়ে ঢুকবে না।

২৪. সুগন্ধী সবসময় তুলো বা ভারী কাপড়ে জড়িয়ে রাখুন। এতে সুগন্ধী বেশি দিন ভালো থাকবে।

২৫. ফ্লাক্সের ভেতরে অংশ ভালভাবে পরিস্কার করতে হলে, ফ্লাক্সে গরম পানি ভরুন। তাতে কয়েক টুকরো কাগজ দিয়ে দিন। ঘণ্টাখানেক পর ফ্লাক্সটি ভালভাবে ঝাঁকিয়ে নিয়ে পানি বের করে ফেলুন। এতে ফ্লাক্সের ভেতরটা ঝকঝকে পরিষ্কার হয়ে যাবে।

 

 

নুসরাত শাহপার তুবা

ই-মেইল: contact@atpoure.com

Leave a Reply